14 জন দেখেছেন
ইসলামের নবী মুহাম্মদ নাকি সিরিয়াতে ব্যবসা করতে গিয়ে খ্রিষ্টানদের বাইবেল থেকে কিছু নিয়ে, আরবের ইহুদিদের তাওরাত থেকে কিছু নিয়ে, এমনকি ইহুদি যাজকদের নিজেদের রচিত তালমুদ থেকে কিছু নিয়ে কোরআনে লিপিবদ্ধ করেন যাতে উনাকে ইহুদি-খ্রিষ্টানেরা নবী মানেন?
"ইসলাম ধর্ম" বিভাগে

1 উত্তর

0 পছন্দ 0"> 0 জনের অপছন্দ

যদি কুরআন ইহুদি-খৃস্টানদের কাছ থেকে তিনি সংগ্রহ না করেন, তাহলে কি আপনি ইসলাম গ্রহন করবেন? তাহলে আপনাকে জানিয়ে লাভটা কি হল?

তারচেয়ে বলি অপেক্ষা করুন, সময় হলে কোনটা সত্য, কোনটা মিথ্যা সেটা পরিষ্কার হয়ে যাবে৷ শুধু মৃত্যু পর্যন্ত অপেক্ষা করুন, মৃত্যুর পর যদি দেখেন, ইসলামে যেগুলো বলা হয়েছে, তা মিথ্যা, তাহলে তো প্রমাণিত হয়েই গেল কুরআন, ইসলাম সব মিথ্যা৷ আর যদি মৃত্যুর পর ইসলামে বর্ণিত পরকাল, কিয়ামত, বেহেশত, দোযখ ইত্যাদি সত্য দেখেন…কিছু বললাম না।

আপনি ইসলাম ধর্ম গ্রহন না করলে ইসলামের কিছু কমবে বা বাড়বেনা, আল্লাহ তায়ালার কিছু যাবে বা আসবেনা৷ ইসলাম যদি সত্য হয়, তাহলে সেটার মাশুলও আপনাকে দিতে হবে, আর ইসলাম যদি মিথ্য হয়, তবে হয়তো পার পেয়ে যাবেন৷ তবে হ্যাঁ, চান্স ফিফটি ফিফটি৷ আপনি যদি সম্ভব্যতার অঙ্ক (Prabablity) করেন, ৫০% সম্ভাবনা রয়েছে ইসলাম সত্য হওয়ার, ৫০% সম্ভাবনা রয়েছে মিথ্যা হওয়ার৷ তবে অংকের কথা ছাড়ুন৷ অংক আর বাস্তবের অনেক পার্থক্য৷ আপনি যদি যৌক্তিক দিক থেকে বিবেচনা করেন, ঐতিহাসিক দিক থেকে বিবেচনা করেন, বৈজ্ঞানিক দিক থেকে বিবেচনা করেন, সব দিক থেকেই ইসলাম ধর্ম এগিয়ে থাকে৷ তবে সেটা নির্ভর করবে আপনি আদৌ সঠিক পথে বিবেচনা করছেন কিনা৷ যেমন, আপনি যে প্রশ্ন করেছন, তা একেবারেই অবিবেচিত প্রশ্ন৷

তাওরাত, তালমুদ, বাইবেল এগুলো নিয়ে ইহুদী খৃষ্টানরা নিজেরাই Confused! তারা নিজেরা তাদের কিতাবে পরিবর্তন, সংস্করণ, পরিমার্জন করে এতে সত্য ও মিথ্যার সন্নিবেশ ঘটিয়েছে৷ তারা নিজেরাও জানেনা কতটুকু সত্য আর কতটুকু মিথ্যা৷ মুহাম্মাদ সঃ যদি তাদের থেকে ধারই করবেন, তবে কীভাবে বেছে বেছে শুধু সত্যটুকু সংগ্রহ করলেন আর মিথ্যাটুকু বাদ দিলেন? এটা কি আদৌ সম্ভব যে ইহুদি-খৃষ্টানরা হাজার বছর ধরে কিতাব ধারণ করছে, কোনটুকু সত্য আর কোনটুকু মিথ্যা তারা তা জানেনা; সহসা অচেনা একজন লোক সেই কিতাবের ভুলগুলো থেকে শুদ্ধ অংশগুলোকে পৃথক করবে? যৌক্তিকদিক থেকে তা অসম্ভব! সুতরাং, যেটা সম্ভব, সেটা বাদ দিয়ে আপনি যদি অসম্ভবকেই বাছাই করেন, তবে আপনি অবিবেচকের পরিচয় দিলেন!

আপনি যে প্রশ্ন করেছেন, তার সপক্ষে আপনার কোনো প্রমাণ আছে কি? আপনি যাদের থেকে প্রশ্নটি শুনেছেন, তাদের কাছে কোনো প্রমাণ আছে কি? এই ধরণের কার্যকলাপের প্রেক্ষিতে কুরআনের জবাবটা শুনে যান:

"এব্যাপরে তাদের কোনো জ্ঞান নেই, নেই তাদের বাপ-দাদাদেরও৷ তারা এই বাণী বিশ্বাস না করলে তাদের পিছে ঘুরে ঘুরে তুমি নিজেকে নিঃশেষ করে দিও না৷" সুরা কাহাফ

সময়ই একদিন বলে দিবে।

সংশ্লিষ্ট প্রশ্নসমূহ

1 টি উত্তর
01 এপ্রিল "ইসলাম ধর্ম" বিভাগে জিজ্ঞাসা
...