35 জন দেখেছেন
রাতে ঘুমালে প্রচুর নাক ডাকি, এর থেকে বাচার উপায় কী? 
"রোগ, চিকিৎসা ও ঔষধ" বিভাগে করেছেন (82 পয়েন্ট)

2 উত্তর

0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ

অ্যালকোহলকে না বলুন
বেশি পরিমাণে অ্যালকোহল বা মদ-জাতীয় পানীয় পানের কারণে কারও নাক ডাকতে পারে। অ্যালকোহল জিভের পেশিগুলোকে শিথিল করে দেওয়ার কারণে শ্বাস-প্রশ্বাসের নালি সংকুচিত হয়ে পড়ে আর এ থেকে নাক ডাকা শুরু হয়। রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে অ্যালকোহল পান থেকে বিরত থাকার মাধ্যমে এই সমস্যা দূর করার চেষ্টা চালানো যেতে পারে।

ধূমপান ছাড়তে হবে
ধূমপানের কারণে এমনিতেই শ্বাস-প্রশ্বাসজনিত কিছু জটিলতা তৈরি হয়। আবার ধূমপান থেকে টারবাইনেটস নামে নাকের বিশেষ এক ধরনের টিস্যু স্ফীত হয়ে যেতে পারে এবং এ থেকেও শ্বাস-প্রশ্বাসের জটিলতা সৃষ্টি হতে পারে। ধূমপানের এই দুই পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার কারণেই নাক ডাকার সমস্যা হতে পারে। ধূমপানের বদ-অভ্যাস ত্যাগ করতে পারলে আপনার আর আপনার সঙ্গীর রাতের ঘুমই শুধু ভালো হবে না, তা আপনার সার্বিক স্বাস্থ্যের নাটকীয় উন্নতিতে সহায়ক হবে।

মসলাযুক্ত খাবার এড়িয়ে চলুন
অতিরিক্ত পরিমাণে মসলাযুক্ত খাবার খেলে পাকস্থলীতে বেশি মাত্রায় অ্যাসিডের প্রতিক্রিয়া শুরু হতে পারে। অনেক গবেষণা থেকেই দেখা গেছে, এজাতীয় সমস্যার সঙ্গে নাক ডাকার সম্পর্ক আছে। যদি কিছুতেই নাক ডাকার কারণ খুঁজে বের করতে না পারেন, তাহলে খাবারদাবারে মসলার পরিমাণ কমিয়ে বিষয়টা পরীক্ষা করে দেখতে ক্ষতি কি।

অতিরিক্ত ওজন কমান
অতিরিক্ত ওজন নাক ডাকার সবচেয়ে সাধারণ কারণগুলোর একটা। আপনার ওজন যত বেশি হবে, নাক ডাকার আশঙ্কাও তত বেশি বাড়তে থাকবে। আর অতিরিক্ত মুটিয়ে মানুষের নাক ডাকার শব্দও কিন্তু বেশি। ওজন কমানোর চেষ্টা করেন। কয়েক কিলোগ্রাম ওজন কমাতে পারলেও হয়তো নাক ডাকা না-ডাকার বিষয়টা আপনার কাছে স্পষ্ট হতে পারে।

শোয়ার ভঙ্গি বদলান
যাঁদের নাক ডাকে, তাঁরা চিত্ হয়ে বিছানায় পিঠ ঠেকিয়ে শোয়ার অভ্যাসটা বাদ দিয়ে দিতে পারেন। আর যদি চিত্-কাত হতে হতে আর সঙ্গীর খোঁচা খেতে খেতে বিব্রত হয়ে থাকেন, তাহলে সঙ্গীর দিকে পিঠ দিয়ে কাত হয়ে শুয়ে পড়ুন। আপনার পাজামায় কোমরের কাছে একটা টেনিস বল গুঁজে রাখলে আপনা-আপনি চিত্ হয়ে যাওয়া থেকে রেহাই পেয়ে যেতে পারেন। এতে নাক ডাকাও কমতে বা বন্ধ হতে পারে।

বিছানা পরিষ্কার রাখুন
বিছানাপত্রে বেশি ধুলাবালি থাকলে, ঘর বেশি ময়লা হলে শ্বাস-প্রশ্বাসের সমস্যা হয়। এ পরিস্থিতিতে নাকের নালিতে ধুলা-ময়লা সংক্রমিত হয়ে নাকের পেশি ফুলে উঠতে পারে এবং নাক ডাকা শুরু হতে পারে। তাই বিছানাপত্র ও ঘরদোর পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখাটা খুবই জরুরি। এটাই স্বাস্থ্যসম্মত এবং এতে ঘুমও ভালো হয়। আর নাক ডাকাও দূর হতে পারে।

জৈবিক কারণ খুঁজুন
চিকিত্সাবিজ্ঞান অনুসারে নাক ডাকার তিনটি প্রধান জৈবিক কারণ আছে। নাকের নালিতে পুরু নরম প্রলেপ থাকা, অন্য কোনো কারণে নাকের নালি আংশিক সংকুচিত থাকা এবং জিহ্বার পেছনে বায়ুপথ সংকুচিত থাকা। আসল কারণ খুঁজে বের করতে না পারলে এ থেকে নিস্তার পাবেন না। একজন সাধারণ চিকিত্সক যদি এ বিষয়ে সাহায্য করতে না পারেন, তাহলে নাক-কান-গলারোগ বিশেষজ্ঞ দেখিয়ে পরামর্শ নিন।

নাক না গলা জেনে নিন
আপনি নাক দিয়ে শব্দটা করছেন, নাকি গলা দিয়ে—সেটা আগে নিশ্চিত হওয়া জরুরি। অনেকের ক্ষেত্রে আবার দুটাই একসঙ্গে হতে পারে। তবে নাক বা গলার যেকোনো একটায় সমস্যা থাকলে নিশ্চিন্তে আপনি নাকের ড্রপ বা গলার স্প্রে—যেকোনো একটা বাদ দিয়ে দিতে পারেন।

করেছেন (89,237 পয়েন্ট)
0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ

মূলত আলজিহ্বা এবং মুখগহ্বরের তালুতে গঠনগত সমস্যার জন্য মানুষ নাকডাকে এবং Obstructive sleep apnea syndrome -এ আক্রান্ত হয়। তথাপি নিুলিখিত কারণগুলো এর জন্য প্রধানত দায়ীÑ * স্থূলকায় ব্যক্তিরা যাদের গলগহ্বর এবং শ্বাসনালির উপরিভাগে চর্বি জমে নালীপথ সরু হয়ে গেলে। * অতিরিক্ত ধূমপান বা মদ্যপান করলে। * ঘুমের সময় গলগহ্বর এর পেশির দুর্বলতা বা টোন কমে গেলে শ্বাসনালি সরু হয়ে যায়। * চিত হয়ে ঘুমালে জিহ্বার পেশি শৈতল্য হয়ে জিহ্বা পিছন দিকে সরে গিয়ে শ্বাস প্রবাহে বাধা সৃষ্টির মাধ্যমে। * নিচের চোয়ালের অবস্থানগত ত্র“টির কারণে । * দুই পাশের টনসিল বড় হয়ে গেলে। * আংশিক নাশিকা গহ্বর বন্ধ থাকলে, যেমন- নাকের পলিপ , নাকের তরুণাস্থি বাঁকা , সাইনাসের প্রদাহ এবং অ্যালার্জিজনিত সর্দি । * যাদের গলগহ্বর-এর তালু এবং আলজিহ্বা বড় থাকে, যেমন- Acromegaly রোগের কারণে এ ধরনের সমস্যা হতে পারে। * পেশি শীতলীকরণ ঔষধ (ঘুমের ঔষধ) সেবন করলে।

করেছেন (24,139 পয়েন্ট)

সংশ্লিষ্ট প্রশ্নসমূহ

1 টি উত্তর
24 আগস্ট 2019 "যৌন" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Azad (2,215 পয়েন্ট)
1 টি উত্তর
24 আগস্ট 2019 "যৌন" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Azad (2,215 পয়েন্ট)
1 টি উত্তর
20 আগস্ট 2019 "যৌন" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Azad (2,215 পয়েন্ট)
1 টি উত্তর
29 ডিসেম্বর 2020 "রোগ, চিকিৎসা ও ঔষধ" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Atiqur Rahman Atik (24,139 পয়েন্ট)
1 টি উত্তর
14 জানুয়ারি 2020 "স্বাস্থ্য টিপস" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Atiqur Rahman Atik (24,139 পয়েন্ট)
1 টি উত্তর
1 টি উত্তর
28 ডিসেম্বর 2019 "রোগ, চিকিৎসা ও ঔষধ" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন James Bond (8,437 পয়েন্ট)
1 টি উত্তর
...