27 জন দেখেছেন
12 অক্টোবর 2019 "যৌন" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন অজ্ঞাতকুলশীল

1 উত্তর

নারী শরীরে অনিয়মিত ঋতুস্রাব একটি প্রচলিত সমস্যা। সাধারণত একজন নারীর জীবনে ঋতুচক্র শুরু হওয়ার পর থেকে ২১ দিন থেকে ৩৫ দিনের মধ্যে যেটি হয় সেটি নিয়মিত ঋতুস্রাব। আর যদি ২১ দিনের আগে বা ৩৫ দিনের পরে হয় তবে সেটিকে অনিয়মিত ঋতুস্রাব বলে।

অনিয়মিত ঋতুস্রাব সাধারণত যৌবনের প্রারম্ভে এবং যৌবন শেষে হতে পারে। যৌবনের প্রারম্ভে সাধারণত ১২ থেকে ২০ বছর বয়সে কারো শরীরের ইস্ট্রোজেন ও প্রোজেস্টেরন হরমোন যদি অপরিপক্ব (প্রিমেচিউর) থাকে তবে অনিয়মিত ঋতুস্রাব হয়। 

আবার নারী শরীরে মেনোপজ শুরু হওয়ার আগে এ ধরনের সমস্যা হয়। এ ছাড়া বিভিন্ন ধরনের শারীরিক জটিলতার কারণেও এই সমস্যা হতে পারে।

নিয়মিত মাসিক বা ঋতুস্রাব না হওয়ার কারণ :



  1. শরীরে ইস্ট্রোজেন ও প্রোজেস্টেরন হরমোনের তারতম্যের কারণে এই সমস্যা হয়। 
  2. বিবাহিত নারীরা হঠাৎ জন্মনিয়ন্ত্রক ওষুধ বন্ধ করে দিলে হতে পারে। 
  3. বিভিন্ন ধরনের মানসিক চাপের ফলে হতে পারে। 
  4. শরীরের রক্ত কমে গেলে অর্থাৎ এনিমিয়া হলে অনিয়মিত মাসিক হওয়ার আশঙ্কা থাকে। 
  5. অনেকের ক্ষেত্রে ওজন বেড়ে গেলে এই সমস্যা হয়। 
  6. জরায়ুর বিভিন্ন জটিলতার কারণে হতে পারে। 
  7. সহবাসের সময় পুরুষের শরীর থেকে আসা অসুখের কারণে হতে পারে। যেমন : গনোরিয়া, সিফিলিস ইত্যাদি। 
  8. রীরে টিউমার ও ক্যানসার ইত্যাদি অসুখে হতে পারে। প্রি মেনোপজের সময় হয়ে থাকে। 
  9. যেসব নারী শিশুদের বুকের দুধ খাওয়ান সেসব নারীর অনিয়মিত ঋতুস্রাব হতে পারে।

চিকিৎসা :
চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী সাধারণত হরমোনাল থেরাপি দেওয়া হয়। কারো ক্ষেত্রে যদি বেশি ওজনের জন্য এই সমস্যা হয় তবে ডায়েট ও ব্যয়াম করতে বলা হয়। অনেকের ক্ষেত্রে মেয়ের পাশাপাশি মাকেও পরামর্শ (কাউন্সিলিং) দেওয়া হয়। আর সন্তান ধারণক্ষম বয়সে সমস্যা অনুযায়ী চিকিৎসা করাতে হবে। বেশি রক্তপাত হলে আয়রন সাপ্লিমেন্ট দেওয়া হয়। তবে চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী ওষুধ সেবন করা উচিত।

source : ntvbd online
12 অক্টোবর 2019 উত্তর প্রদান করেছেন

সংশ্লিষ্ট প্রশ্নসমূহ

1 টি উত্তর
04 অক্টোবর 2019 "যৌন" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন মায়া
1 টি উত্তর
18 মে 2020 "যৌন" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন শূণ্যস্থান
1 টি উত্তর
14 মে 2020 "যৌন" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Sajal ojha

89,342 টি প্রশ্ন

92,131 টি উত্তর

2,394 টি মন্তব্য

11,421 জন সদস্য

...