137 জন দেখেছেন
13 অক্টোবর 2019 "যৌন" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন অজ্ঞাতকুলশীল

1 উত্তর

0 টি ভোট
13 অক্টোবর 2019 উত্তর প্রদান করেছেন (89,207 পয়েন্ট)

কয়েকবার সেক্স বা হস্তমৈথুন এর পর বীর্য কিছুটা পাতলা হতে পারে। পানির শূন্যতার কারনে অনেক সময় বীর্য পাতলা হয়ে যেতে পারে । এছাড়া কয়েকটি ঔষধ যেমন, vitamin E, N-acetyl cysteine এর কারনে এটি হতে পারে । তাছাড়া আপনার prostate এর কোন infection হলেও, বীর্য পাতলা হতে পারে।

একটি সমীক্ষায় জানা গিয়েছে- যে সব পুরুষের বীর্যের ঘনত্ব কমছে, তাঁদের ডায়াবেটিস, অস্টিওপোরেসিস, হাড় ভেঙে যাওয়ার মতো রোগ হওয়ার সম্ভাবনা বেশি।
চিকিত্সকরা জানাচ্ছেন, পুরুষদের ক্ষেত্রে ডায়াবেটিস, অস্টিওপোরেসিস, হাড় ভেঙে যাওয়ার মতো রোগগুলির প্রথম লক্ষণই হল বীর্য পাতলা হয়ে যাওয়া।

বীর্য ঘন করার উপায়



প্রাকৃতিক কিছু জিনিস যা আপনার বীর্যকে ঘন করতে সাহায্য করবে। এই প্রাকৃতিক উপাদানগুলো আমদের হাতের কাছেই পাওয়া যায়। যেমন- রসুন হতে পারে আপনার বিবাহিত জীবনের নতুন বন্ধু।

“নিয়মিত পুষ্টিকর খাবার খেলে এমনিতেই পুরুষের বীর্য ঘন হয়ে থাকে। যেমন প্রতিদিন দুধ, ডিম, মধু গ্রহণ”

প্রতিদিন নিয়ম করে কয়েক কোয়া কাঁচা রসুন খেলে শরীরের যৌবন দীর্ঘ স্থায়ী হয় । যারা পড়ন্ত যৌবনে চলে গিয়েছেন, তারা প্রতিদিন দু’কোয়া রসুন খাঁটি গাওয়া ঘি-এ ভেজে মাখন মাখিয়ে খেতে পারেন। তবে খাওয়ার শেষে একটু গরম পানি বা দুধ খাওয়া উচিত। এতে ভালো ফল পাবেন।যৌবন রক্ষার জন্য রসুন অন্যভাবেও খাওয়া যায়। কাঁচা আমলকির রস ২ বা ১ চামচ নিয়ে তার সঙ্গে এক বা দুই কোয়া রসুন বাটা খাওয়া যায়। এতে স্ত্রী-পুরুষ উভয়ের যৌবন দীর্ঘস্থায়ি হয়।

তবে যাদের শরীর থেকে রক্তপাত সহজে বন্ধ হয় না, অতিরিক্ত রসুন খাওয়া তাদের জন্য বিপদ জনক। কারণ, রসুন রক্তের জমাট বাঁধার ক্রিয়াকে বাধা প্রদান করে।
রাতে শুবার সময় ইসুপগুলের ভুসি পানি দিয়ে খাবেন ৭ দিন খান ফলাফল নিজেই পাবেন। কথায় আছে, দাদা খেলে দাদি খুশি নানা খেলে নানি খুশি এরেই নাম ইসুপগুলের ভুসি।

নিয়মিত পুষ্টিকর খাবার খেলে এমনিতেই পুরুষের বীর্য ঘন হয়ে থাকে। যেমন প্রতিদিন দুধ, ডিম, মধু গ্রহণ করলে সাধারণত আর কোনো কিছুরই দরকার পড়ে না। অনেকে আবার সরাসরি ঔষধ খাওয়া শুরু করে দেন। তারও কোনো দরকার আছে বলে ডাক্তাররা মনে করেন না। কারণ পুরুষের বীর্য উত্পন্ন হয় সরাসরি তাদের খাবার থেকে।

আর যদি কিছু খেতেই মনে চায় তাহলে “শিমুল মূল চূর্ণ” এবং “শিলাজুত” প্রতিদিন ১ চামচ পরিমান সকালে পানিতে মিশিয়ে সপ্তাহ বা ১০ দিন খেতে পারেন। এতেই কাজ হয়ে যাবে।

“শিলাজুত” আগের দিন পানিতে ভিজিয়ে রাখতে হয়। এগুলো প্রাকৃতিক।
হোমিওপ্যাথিতেও বীর্য ঘন করার দারুন কিছু ঔষধ রয়েছে যেগুলির কোনো প্রকার পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া নেই এবং সারা বছরই আপনি খেতে পারবেন।

সংশ্লিষ্ট প্রশ্নসমূহ

1 টি উত্তর
12 অক্টোবর 2019 "যৌন" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন অজ্ঞাতকুলশীল
1 টি উত্তর
01 অক্টোবর 2020 "যৌন" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Mrinmoy (24,963 পয়েন্ট)
1 টি উত্তর
...