39 জন দেখেছেন
13 অক্টোবর 2019 "যৌন" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন অজ্ঞাতকুলশীল

1 উত্তর

0 টি ভোট
13 অক্টোবর 2019 উত্তর প্রদান করেছেন (89,207 পয়েন্ট)

যৌনতা হচ্ছে জীবের আদিম প্রবৃত্তি, যা টিকে থাকা এবং বংশবৃদ্ধির জন্য প্রকৃতিরই গড়া নকশা। তাই মানুষের মস্তিষ্ক যৌন ইঙ্গিত বা যৌনতা প্রকাশ করে এমন ছবি বা ভিডিওর ক্ষেত্রে খুব সহজেই সাড়া দেয়। পর্নোগ্রাফিও এর ব্যতিক্রম না। পর্নোগ্রাফির স্বল্প ব্যবহার যৌন আকাঙ্ক্ষা বৃদ্ধি এবং সঙ্গী ভিত্তিক সম্পর্কের উন্নয়ন ঘটালেও দীর্ঘদিন ধরে অতিরিক্ত মাত্রায় এর ব্যবহার বা এর প্রতি আসক্তি মানুষের মস্তিষ্ক এবং যৌন জীবনের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর।

ব্যস্ত জীবনের মধ্যে পর্ন দেখার জন্য অনেকেই সময় বের করে নেন। অনেকেই দিনান্তে পর্ন দেখেন সাময়িক আনন্দলাভের আশায়। কিন্তু জানেন কি, বেশি মাত্রায় পর্ন দর্শন কতটা সর্বনাশ করছে আপনার? 

সমীক্ষা করে দেখা গিয়েছে, যাঁরা নিয়মিত পর্ন দেখেন, তাঁরা বিভিন্ন ধরনের সমস্যায় ভুগছেন। পৃথিবীর একাধিক দেশের পুরুষ, নারীর উপর এই সমীক্ষা চালিয়ে দেখা গিয়েছে ভয়ঙ্কর সব সমস্যার জন্ম দিচ্ছে এই অভ্যাস। মানসিক বিকৃতির জন্ম দেয়। অতিরিক্ত পর্ন মস্তিস্কের উপর চাপ ফেলে। 

স্বাভাবিক বিচক্ষণতা লুপ্ত হতে থাকে। বাস্তব থেকে দূরে সরিয়ে দেয় মানুষকে। বাস্তব এবং অবাস্তবের মধ্যে এক অদ্ভুত গুলিয়ে দেওয়া পরিস্থিতি তৈরি করে।

ক্রমশ নিজের ব্যক্তিগত আবেগ, ইমোশনের উপর থেকে নিয়ন্ত্রণ হারাতে শুরু করে। হঠাৎ রেগে যাওয়াও এক অন্যতম লক্ষণ।

সর্বোপরি একটা সুস্থ জীবন থেকে আপনাকে ক্রমশ দূরে সরিয়ে নিয়ে যাবে আপনার পর্ন-দর্শন। শুধু জীবনসঙ্গী নয়, সন্তানদের থেকেও দূরে সরিয়ে নিয়ে যাবে আপনাকে। 

কারণ অতিরিক্ত পর্ন দেখলে পৃথিবীর স্বাভাবিক, নিষ্পাপ আনন্দ আপনি উপভোগ করতেই ভুলে যাবেন ধীরে ধীরে। ব্যক্তিগত জীবন অসুখী করে তোলে। সঙ্গীকে সুখী করা বা সঙ্গীর থেকে আনন্দ পাওয়ার ক্ষেত্রে অন্তরায় হয়ে দাঁড়ায় আপনার এই অভ্যাস।

সংশ্লিষ্ট প্রশ্নসমূহ

1 টি উত্তর
07 এপ্রিল 2020 "পড়াশোনা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Md Jakaria (476 পয়েন্ট)
1 টি উত্তর
2 টি উত্তর
...