"রোগ, চিকিৎসা ও ঔষধ" বিভাগে করেছেন

1 উত্তর

0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ

গলব্লাডার বা পিত্তথলিতে পাথর বহু মানুষের হয়ে থাকে। সাধারণত চলিশোর্ধ নারীদের মধ্যে এ রোগ বেশি দেখা দেয়। বেশ কিছু কারণে পিত্তথলিতে পাথর হতে পারে ৷ আসুন জেনে নেই - 

১) খাবারে কোলেস্টরলের পরিমাণ বেশি থাকলে পিত্তথলিতে পাথর হয়। 
২) যেসব নারী হরমোন নেন বা নিয়মিত জন্মবিরতিকরণ পিল খান তাদেরও পিত্তথলিতে পাথর হয়। 
৩) বছরের পর বছর গ্যাস্ট্রিকের ওষুধ খেলেও পিত্তথলিতে পাথর হতে পারে । 
৪) গর্ভকালীন সময়ে ও গলব্লাডারে পাথর হওয়ার একটা কারণ। কেননা গর্ভধারন করলে চলাফেরা কম করা হয়। এর ফলে পিত্তথলির ফাংশন কিছুটা কমে যায়। 
৫) যারা শারীরিক পরিশ্রম কম করে থাকেন তারাই পিত্তথলির পাথর হওয়ার ঝুঁকিতে ভোগেন। 
৬) স্থুলকায় ব্যক্তিদের পিত্তথলিতে পাথর হওয়ার সম্ভাবনা অনেক বেশি । এজন্য দেখা যায় আমেরিকার দশ ভাগ লোক গলব্লাডারে পাথর নিয়ে চলছে। 
৭) পরিবারে কারো গলব্লাডারে পাথর হওয়ার ইতিহাস থাকলে অন্যদেরও পাথর হওয়ার সম্ভাবনা থেকে যায়। 
৮) শিশুর ক্ষেত্রে যদি রক্তে লোহিত কণিকা ভেঙ্গে যায় সেক্ষেত্রে পাথর হওয়ার সম্ভাবনা বেশী হতে পারে।
করেছেন

সংশ্লিষ্ট প্রশ্নসমূহ

1 টি উত্তর
15 মে 2020 "রোগ, চিকিৎসা ও ঔষধ" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন অজ্ঞাতকুলশীল
2 টি উত্তর
23 মার্চ "রোগ, চিকিৎসা ও ঔষধ" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Abdus Salam
1 টি উত্তর
1 টি উত্তর
...