48 জন দেখেছেন
"সৌন্দর্য ও রূপচর্চা" বিভাগে করেছেন (2,215 পয়েন্ট)

2 উত্তর

0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
চোখের নিচে কালো দাগ দূর করার কয়েকটি উপায় দেওয়া হলো।আপনি এগুলি চেষ্টা করে দেখতে পারেন।
১. কদম ফুলের পাপড়ি বেটে পাঁচ থেকে ১০ মিনিট লাগিয়ে রাখুন। এতে চোখের নিচের কালো দাগ অনেকটাই দূর হবে। এটি না পেলে পুদিনাপাতা বা নিমপাতাও ব্যবহার করতে পারেন।
২. দুই চা চামচ ফ্রিজে রাখুন এবং চামচ দু’টি ঠাণ্ডা হবার জন্য অপেক্ষা করুন। চামচ ঠাণ্ডা হলে, বালিশে শুয়ে চোখের উপর চামচ দু’টি রাখুন। এটির দুটি সুফল আছে। এটি চোখের ক্লান্তি দূর করে এবং চোখের কালো দাগ দূর করতে সাহায্য করে।
৩. দু’টি কটন বল শসার রসে ডুবিয়ে চোখের ওপর পনেরো মিনিট রাখুন।

৪. ঠাণ্ডা টি ব্যাগ চোখের ওপর রাখলে ভালো ফল পাবেন। গ্রিন টি-এর ব্যাগ রাখলে কাজ দ্রুত হবে।
৫. খোসাসহ আলু বেঁটে চোখের নিচে লাগাতে হবে। তিন চার দিন এই পেস্টটি ব্যবহার করুন। কালো দাগ দূর হবে।
৬. কাজু বাদাম বেটে দুধের সঙ্গে গুলিয়ে, পেস্ট করে চোখের চারপাশে লাগাতে পারেন।
৭. চোখের চারপাশে বাদাম তেল দিয়ে ম্যাসাজ করলেও দ্রুত উপকার পাবেন
করেছেন (89,237 পয়েন্ট)
0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ

পরিমিত ঘুমানোর অভ্যাস। অন্তত সাত-আট ঘণ্টা ঘুমাতে হবে। ঘুমের ব্যাঘাত ঘটায় এমন ওষুধ পরিহার করতে হবে। পর্যাপ্ত পরিমাণে বিশুদ্ধ পানি পান করুন। তবে রাতে ঘুমানোর আগে বেশি পানি খাওয়া অনুচিত। চোখ কচলানো একেবারে বাদ দিন। চোখে ঠান্ডা সেঁক দিতে পারেন। মাথার নিচে অতিরিক্ত বালিশ ব্যবহার করতে পারেন। এটি অনেক সময় চোখের ফোলাভাব কমাতে সাহায্য করে। প্রচুর সবুজ মৌসুমি শাকসবজি আর ফলমূল খান। ধূমপান থেকে বিরত থাকুন। দুশ্চিন্তা আর মানসিক চাপ থেকে দূরে থাকুন। রোদে বাইরে বের হলে রোদচশমা ব্যবহার করতে পারেন। ঘরে বসে সহজেই আপনি প্রাকৃতিক উপায়ে চোখের নিচের কালি দূর করতে পারেন। পাতলা করে কাটা শসা চোখে দিয়ে ১০ থেকে ১৫ মিনিট চোখ বন্ধ রাখুন। ব্যবহূত টি ব্যাগ ফ্রিজে রেখে সকালে ১০ থেকে ১৫ মিনিট চোখে রাখুন। পাতলা করে কাটা আলুর টুকরা ফ্রিজে রেখে চোখে রাখুন। আলু ও শসা সমপরিমাণে মিশিয়ে চোখের চারপাশে ক্রিম হিসেবে লাগাতে পারেন। টমেটোর রস অনেক ক্ষেত্রে উপকারী। কখন চিকিৎসককে দেখানো জরুরি চোখের কালো দাগ এবং ফোলা যদি সময়ের সঙ্গে সঙ্গে বাড়তে থাকে এবং দৃষ্টিতে ব্যাঘাত ঘটে, তাহলে অবশ্যই চিকিৎসকের শরণাপন্ন হতে হবে। অযথা বাজারের বাহারি ক্রিমে আকৃষ্ট হবেন না। এতে উল্টো হিতে বিপরীত হতে পারে। নিয়মিত নিজের যত্ন নিন, হাসিখুশি থাকুন

করেছেন (24,138 পয়েন্ট)

সংশ্লিষ্ট প্রশ্নসমূহ

1 টি উত্তর
31 জানুয়ারি 2020 "স্বাস্থ্য টিপস" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Atiqur Rahman Atik (24,138 পয়েন্ট)
1 টি উত্তর
24 আগস্ট 2019 "সৌন্দর্য ও রূপচর্চা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Azad (2,215 পয়েন্ট)
1 টি উত্তর
27 ডিসেম্বর 2020 "রোগ ও চিকিৎসা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Mrinmoy (24,961 পয়েন্ট)
1 টি উত্তর
17 ডিসেম্বর 2020 "স্বাস্থ্য টিপস" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Mrinmoy (24,961 পয়েন্ট)
1 টি উত্তর
14 মে 2020 "স্বাস্থ্য টিপস" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Sajal ojha (33,353 পয়েন্ট)
1 টি উত্তর
15 মে 2020 "সৌন্দর্য ও রূপচর্চা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Sajal ojha (33,353 পয়েন্ট)
1 টি উত্তর
25 আগস্ট 2019 "যৌন ও ব্যক্তিগত সমস্যা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Azad (2,215 পয়েন্ট)
1 টি উত্তর
15 মে 2020 "সৌন্দর্য ও রূপচর্চা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Sajal ojha (33,353 পয়েন্ট)
...