28 জন দেখেছেন
"সৌন্দর্য ও রূপচর্চা" বিভাগে করেছেন

2 উত্তর

0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
আপনি যেহেতু ছেলে, তাই চুলকে কালো এবং বড় করতে খাটি শরিষার তেল মাথায় ব্যবহার করুন।
করেছেন (89,237 পয়েন্ট)
0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ

প্রাকৃতিক উপায়ে চুল লম্বা করার উপায়



ডিম ব্যবহারের পদ্ধতি :

প্রথমে একটি বাটিতে একটি ডিমের সাদা অংশ নিন। এতে ১ চা চামচ অলিভ অয়েল (জলপাই তেল) ও ১ চা চামচ মধু নিন (চুলের দৈর্ঘ্য ও পরিমাণ অনুযায়ী অলিভ অয়েল ও মধুর পরিমাণ বাড়াতে পারেন)। তারপর উপকরণগুলো খুব ভালো করে মেশান। যখন এটি মসৃণ পেস্টের আকার ধারন করবে তখন এত ব্যবহার উপযোগী হবে। মসৃণ পেস্টের মত হয়ে গেলে মাথার ত্বকে আলতো ঘষে মিশ্রণটি লাগিয়ে ফেলুন। ২০ মিনিট পর প্রথমে ঠাণ্ডা পানি ও পরে শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন।
সপ্তাহে অন্তত ১ বার এটি ব্যবহার করার চেষ্টা করুন। ভালো ফল পাবেন।

গ্রীণ টি :

সবুজ চা’র (গ্রীণ টি) স্বাস্থ্য উপকারিতা সম্পর্কে কম বেশি সবাই জানে। আজকে জেনে নেই গ্রীণ টি ব্যবহারে কি করে স্বাস্থ্যউজ্জ্বল চুল পাওয়া যায়। গ্রীণ টির এন্টিঅক্সিডেন্ট উপাদানসমূহ ত্বকের জন্য যতটা কার্যকরী চুলের জন্য ঠিক ততোটাই উপকারী। গ্রীণ টি চুলের আগা ফাটা রোধ করে যার ফলে চুল লম্বা হওয়ার সম্ভাবনা বাড়ে।
এছাড়াও গ্রীণ টি চুল পড়া রোধ ও নতুন চুল গজানোতে সহায়তা করে।

গ্রীণ টি ব্যবহারের পদ্ধতি :

গ্রীণ টি কম বেশি সবাই বানাতে জানি। বাজারে গ্রীণ টি পাওয়া যায়। প্রথমে গ্রীণটি বানিয়ে নেবেন। অনেকেই গ্রীণ টিতে মধু বা চিনি দিয়ে থাকেন। কিন্তু চুলে ব্যবহারের জন্য গ্রীণ টি তে চিনি বা মধু দেবেন না। এক কাপ পরিমাণ গ্রীণ টি নিয়ে হালকা গরম থাকতেই পুরো চুলে লাগিয়ে নিন। চুলের গোড়ায় ভালো করে লাগাবেন। ১ ঘণ্টা চুলে লাগিয়ে রাখুন। তারপর ঠাণ্ডা পানি দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন।

আলু :

আলুর ত্বকের ও অন্যান্য অনেক ক্ষেত্রের গুণাবলী সম্পর্কে অনেকেই জানলেও আলু চুলের জন্য কতোটা উপকারী তা অনেকেই জানেন না। আলুর হচ্ছে টাকের সমস্যা দূর করার জাদুকরী উপাদান। আলুর ভিটামিন বি৬ টাক পরা রোধে কাজ করে। এছাড়াও আলুর মধ্যে রয়েছে ভিটামিন সি, পটাশিয়াম, ম্যাংগানিজ ও ফাইবার যা নতুন চুল গজানো, চুলের অকালপক্বতা রোধ ইত্যাদির জন্য কাজ করে।

আলু ব্যবহারের পদ্ধতি :

একটি মাঝারি আকৃতির আলু ঝুরি করে চিপে এর থেকে রস বের করে নিন। এরপর একটি বাটিতে আলুর রস, একটি ডিমের সাদা অংশ ও ১ চা চামচ মধু খুব ভালো করে মেশান। খুব ভালো করে মিশে গেলে, মিশ্রণটি চুলের গোঁড়ায় আলতো ঘষে লাগিয়ে নিন। এভাবে ২ ঘণ্টা রেখে দিন। ২ ঘণ্টা পর একটি মৃদু শ্যাম্পু দিয়ে চুল ভালো ভাবে ধুয়ে নিন।

করেছেন (24,141 পয়েন্ট)

সংশ্লিষ্ট প্রশ্নসমূহ

1 টি উত্তর
28 ডিসেম্বর 2019 "স্বাস্থ্য টিপস" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Atiqur Rahman Atik (24,141 পয়েন্ট)
2 টি উত্তর
09 জানুয়ারি 2020 "স্বাস্থ্য টিপস" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Sajol Roy (7,391 পয়েন্ট)
1 টি উত্তর
24 আগস্ট 2019 "সৌন্দর্য ও রূপচর্চা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Azad (2,207 পয়েন্ট)
2 টি উত্তর
24 আগস্ট 2019 "সৌন্দর্য ও রূপচর্চা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Azad (2,207 পয়েন্ট)
2 টি উত্তর
24 আগস্ট 2019 "সৌন্দর্য ও রূপচর্চা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Azad (2,207 পয়েন্ট)
1 টি উত্তর
13 মে 2020 "সৌন্দর্য ও রূপচর্চা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন শূণ্যস্থান (89,237 পয়েন্ট)
1 টি উত্তর
2 টি উত্তর
23 ডিসেম্বর 2019 "রোগ ও চিকিৎসা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন shah alam (295 পয়েন্ট)
2 টি উত্তর
...